• শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০১:৫৫ অপরাহ্ন

টিপু-প্রীতি হত্যা মামলায় ওমর ফারুকসহ পাঁচজন রিমান্ডে

আমার কাগজ ডেস্ক: / ২৫ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২২

মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু ও কলেজছাত্রী সামিয়া আফরান প্রীতি হত্যা মামলায় ঢাকা দক্ষিণ সিটির ১০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুকসহ পাঁচজনের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোস্তফা রেজা নূর শুনানি শেষে এ রিমান্ডের আদেশ দেন।

রিমান্ডের আসামিরা হলেন- ঢাকা দক্ষিণ সিটির ১০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক, আবু সালেহ শিকদার ওরফে শুটার সালেহ, মো. নাছির উদ্দিন ওরফে কিলার নাছির, মো. মোরশেদুল আলম ওরফে কাইল্লা পলাশ ও আরফান উল্লাহ দামাল।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক (নি.) মোহাম্মদ ইয়াসিন শিকদার আসামিদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, ‘আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের লক্ষ্যে প্রকৃতপক্ষে ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপর অজ্ঞাতনামা আসামি গ্রেপ্তার, হত্যার ঘটনায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের জন্য এবং মামলার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য আসামিদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। ধারণা করা হচ্ছে, আসামিদের রিমান্ডে এনে আসামিসহ গ্রেপ্তার/উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করলে আসামিদের সহযোগী অন্যান্য অজ্ঞাতনামা আসামি নিরুপণ করে গ্রেপ্তার ও হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র, মোটরসাইকেল উদ্ধারের সম্ভবনা রয়েছে।’

রাষ্ট্রপক্ষে স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউট আজাদ রহমান রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করেন।

অন্যদিকে আসামি ওমর ফারুক, মোরশেদুল ও নাছিরের রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন চেয়ে আইনজীবীরা শুনানিতে দাবি করেন, গত ৯ দিন তাদের আটকে রেখে র‌্যাব জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এখন আবার ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। অনেক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। প্রয়োজনে তাদের জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক।

আবু সালেহ শিকদারের আইনজীবী বলেন, তিনি (আবু সালেহ শিকদার) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে জিজ্ঞাসাধীন ছিলেন। তাহলে কেমনে তিনি হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনায় অংশ নেন। দামালের পক্ষেও তার আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন।

এরআগে গত ১ এপ্রিল রাতে রাজধানীর মুগদা, শাহজাহানপুর ও মিরপুর এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, নগদ টাকা ও মোবাইলসহ অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। এরপর দামালকে গ্রেপ্তার করে মতিঝিল থানার একটি অস্ত্র মামলায় একদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। এখন তাকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নেওয়া হলো।

গত ২৪ মার্চ রাত পৌনে ১০টার দিকে মতিঝিল এজিবি কলোনী কাঁচা বাজার সংলগ্ন রেস্টুরেন্ট থেকে বাসায় ফেরার পথে শাজাহানপুর আমতলা ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের সামনে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহত হন মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু এবং কলেজছাত্রী প্রীতি। টিপুর গাড়িচালক গুলিবিদ্ধ হন।

এ ঘটনায় টিপুর স্ত্রী ফারজানা ইসলাম ডলি মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত নামাদের আসামি করা হয়।

মামলা দায়েরের পর ২৬ মার্চ রাতে বগুড়া জেলা থেকে শুটার মোহাম্মদ মাসুম ওরফে আকাশকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। গত ২৮ মার্চ তার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। মাসুম বর্তমানে রিমান্ডে রয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ