• বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:৩৩ অপরাহ্ন
/ অর্থনীতি
দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বব্যাংকের নতুন ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রাইজার বলেছেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের সমর্থন অব্যাহত থাকবে। দেশের সুশীল অর্থনৈতিক অবস্থায় টেকসই প্রবৃদ্ধির জন্য বিশ্বব্যাংকের অব্যাহত সমর্থনের বিষয়টি তিনি পুনরায় নিশ্চিত করেছেন। আরো পড়ুন
চলতি সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম ৮ দিনে প্রবাসীরা বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে দেশে রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ৫৯ কোটি ৫৯ লাখ ডলার। এর মধ্যে ৫০ কোটি ডলারের বেশি এসেছে বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে। আর
খোলা বাজারে ফের বাড়ল ডলারের দাম। আজ রোববার কার্ব মার্কেট বা খোলা বাজারে নগদ এক ডলার কিনতে গ্রাহক‌দের গুণতে হচ্ছে ১১৪ টাকা থেকে ১১৪ টাকা ৫০ পয়সা। যেখানে গত সপ্তাহেও
ডলার বেচাকেনায় অতি মুনাফা করায় দেশি-বিদেশি আরও ছয় ব্যাংকের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বুধবার রাতে এসব ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের (এমডি) কাছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক চিঠি পাঠিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল
বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের জন্য সান্ধ্যকালীন ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ নির্দেশনা জারি করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ
দেশের সব নাগরিককে পেনশন সুবিধার আওতায় আনতে ‘সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা বিল-২০২২’ আইন সভার অনুমোদনের জন্য সংসদে উঠেছে। খসড়া আইনে বলা হয়েছে, সর্বজনীন পেনশন স্কিমের ধার্য করা হারে অংশগ্রহণকারী চাঁদাদাতা নিরবিচ্ছন্নভাবে
শিগগিরই চলমান ডলার সংকট কেটে যাবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। তিনি জানান, একইসঙ্গে বাজারদরের ওপর ভিত্তি করে ডলার রেট নির্ধারণ করা হবে। আজ শনিবার বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট
গত সপ্তাহে কার্ব মার্কেট বা খোলা বাজারে প্রতি ডলার বিক্রি হয় ১২০ টাকা পর্যন্ত। কিন্তু এক সপ্তাহের ব্যবধানে আজ মঙ্গলবার ডলার বিক্রি হচ্ছে ১০৩ টাকা ৫০ পয়সায়। অর্থাৎ খোলা বাজারে