• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন

স্ত্রীকে নিয়ে গভীর রাতে সামরিক বিমানে পালালেন শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: / ১৩ শেয়ার
প্রকাশিত : বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০২২

অবশেষে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার গভীর রাতে দেশ ছেড়ে পালালেন শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।

একাধিক সংবাদমাধ্যমের দাবি, সেনাবাহিনীর বিশেষ বিমানে করে গোতাবায়া পালিয়ে গেছেন।

এর আগে সোমবার গোতবায়া রাজাপাকসে বিমানে করে আরব আমিরাত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু পারেননি।

অবশেষে একদিন পর পালাতে সক্ষম হলেন। তবে আরব আমিরাত নয়। আপাতত তিনি পার্শ্ববর্তী দেশ মালদ্বীপে আশ্রয় নিয়েছেন।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে একটি সামরিক বিমানে গোতাবায়া রাজাপাকসে মালদ্বীপে গেছেন বলে জানিয়েছেন অভিবাসন কর্মকর্তারা। খবর ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির।

শ্রীলংকার সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এএফপি জানায়, ৭৩ বছর বয়সি গোতাবায়া, তার স্ত্রী ও এক দেহরক্ষীসহ ৪জন যাত্রী নিয়ে সামরিক বিমান অ্যান্তোনভ–৩২ মঙ্গলবার মধ্যরাতে বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মালদ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা করেন।

মালে বিমানবন্দরের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মালদ্বীপে পৌঁছানোর পর তাদের পুলিশ এস্কর্টের অধীনে একটি অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে সমুদ্রপথে দেশ ছাড়ার চেষ্টা করেন গোতাবায়া। মঙ্গলবার দেশটি থেকে পালিয়ে যাওয়ার জন্য নৌবাহিনীর টহল নৌযান ব্যবহারের চেষ্টা করেছিলেন তিনি।

এর আগে কলম্বো বিমানবন্দরে এসে আকাশপথে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা ব্যর্থ হয় তার। বিমানবন্দরে চরম অপমানিত হন তিনি।

ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, সোমবার স্থানীয় সময় রাত ১২টা ৩০ মিনিটের পর বিমানবন্দরে আসেন গোতাবায়া। কিন্তু বিমানবন্দরের ভিআইপি লঞ্জের কাস্টমস কর্মকর্তারা সরে পড়েন। ফলে সারারাত বসে থেকেও তার বিদেশে যাওয়ার অনুমোদন পাননি।

যদিও তিনি সাধারণ টার্মিনাল ব্যবহার করতে পারতেন। কিন্তু নিজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সাধারণ টার্মিনালে যাননি তিনি।

দেশটিতে চলমান অস্থিরতার মধ্যে প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় গোতাবায়া দেশ থেকে চলে যেতে তৎপর ছিলেন। কারণ প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় তাকে গ্রেফতার করা যেত না। আজই তার পদত্যাগ করার কথা। কিন্তু এখন পদত্যাগ করায় তাকে গ্রেফতারে বাঁধা থাকবে না। তাই গ্রেফতারের আগেই দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেলেন গোতাবায়া।

এদিকে সাধারণ জনগণের ক্ষুব্ধ আন্দোলনের দাবানল আছড়ে পড়েছে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে ও প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের বাসভবনে। গত শনিবার দেশটির শীর্ষ এই দুই নির্বাহীর বাসভবনের দখল নেন বিক্ষোভকারীরা, এখনও তারা সেখানেই অবস্থান করছেন।

তথ্যসূত্র: বিবিসি, এএফপি, এনডিটিভি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ