• বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন

সেনারা আত্মসমপর্ণ করলে মারিউপোলে গোলাবর্ষণ বন্ধ: পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: / ৩০ শেয়ার
প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের মারিউপোল শহরে অবস্থানরত ইউক্রেনের সেনারা আত্মসমপর্ণ করলেই সেখানে গোলাবর্ষণ বন্ধের কথা জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

আল-জাজিরা জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁর সঙ্গে ঘণ্টাব্যাপী ফোনালাপ হয় পুতিনের। এ সময় ইউক্রেনে চলমান সংকট নিরসনের বিষয়ে উভয় দেশের নেতাদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা হয়। ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের আগে থেকেই মধ্যস্থাকারীর ভূমিকা পালন করছেন মাখোঁ।

উভয় নেতার ফোনালাপ শেষ হলে ফোনালাপ সম্পর্কে ক্রেমিলনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বিস্তারিত জানানো হয়।

মাখোঁ মারিউপোল শহর থেকে বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপদে সরে যাওয়ার সুযোগ দিতে পুতিনের প্রতি আহ্বান জানান। তার সে আহ্বানে সাড়া দেওয়ার কথা জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট। মাত্র এক দিনের জন্য মারিউপোল শহরে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া।

ফোনালাপের পর ফ্রান্সের কর্মকর্তারা জানান, মারিউপোলের বেসামরিক নাগরিকদেরকে অবশ্যই সুরক্ষা দিতে হবে। তারা নগরী ছাড়তে চাইলেও যেতে দিতে হবে। প্রয়োজনীয় খাবার, পানি, ওষুধ এবং ত্রাণও তাদের কাছে পৌঁছাতে হবে।

এক দিনের যুদ্ধবিরতির মধ্যেই বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে হবে। এক্ষেত্রে রেড ক্রস ও জাতিসংঘের শরণার্থী এজেন্সিকে সমন্বয়ের জন্য রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এর আগেও ওই শহরে যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছিল রাশিয়া। কিন্তু যুদ্ধবিরতির মধ্যেই হামলা চালায় রুশ সেনারা। এ কারণে বহু বেসামরিক নাগরিক শহর ছেড়ে বেরিয়ে যেতে পারেনি।

অন্যদিকে ইউক্রেনের অভিযোগ, মারিউপোল শহর থেকে জোর করে বহু বেসামরিক নাগরিককে নিজেদের নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে স্থানান্তর করেছে রাশিয়া।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে শহরটির মেয়র জানান, গত এক মাসে রুশ হামলায় ২১০ শিশুসহ প্রায় ৫ হাজার মানুষ মারা গিয়েছে। এ ছাড়া, আরও বহু মানুষ হতাহত হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ