• রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০৫:০৫ অপরাহ্ন

সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করা হবে: সিইসি হাবিবুল আউয়াল

আমার কাগজ ডেস্ক: / ২৯ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

সব রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন নবনিযুক্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তিনি বলেছেন, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করা হবে।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। শপথ নেওয়ার পর আজই প্রথম কর্মদিবসে নির্বাচন ভবনে আসেন নতুন কমিশনের সদস্যরা।

সব রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে (সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আন্তরিকতা, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে সামনের নির্বাচনগুলো পরিচালনা করার মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করব। আমাদের ওপর আস্থা রাখুন। আমাদের ক্ষমতা অসীম না। সংবিধানে আমাদের দায়িত্ব যেভাবে দেওয়া আছে, আমরা সেভাবেই দায়িত্ব পালন করব। তবে রাজনৈতিক দলগুলোকে সুষ্ঠু নির্বাচন পরিচালনায় আমাদেরকে সহযোগিতা করতে হবে। আমরা সাধ্য মতো ভোটারদের ভোটাধিকার নিশ্চিতে কাজ করব। আমরা চাই কোনো দলই যেন ভোটের মাঠ ছেড়ে না যায়। কারণ কোনো দল ভোটের মাঠ ছেড়ে দিলে নির্বাচন আর সুষ্ঠু থাকে না।

সিইসি বলেন, ভোট ভোটের নিয়ম অনুযায়ী হবে। যদি অতীতের রাতে হয়ে থাকে সেই ব্যাপারটা আমি জানি না। এখন রাতের ভোট, দিনের ভোট সেই এপিসোডে আমরা যেতে চাই না। নবনির্বাচিত নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা রাখুন।

কমিশনের সবার সঙ্গে বসে কর্মপরিকল্পনা তৈরি করবেন জানিয়ে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, নির্বাচনের বিধিবিধান ও কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী আমাদের মেয়াদে কাজ করার চেষ্টা করব।

জনগণের এখন ভোটের উওপর আস্থা আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সব পরিবর্তনশীল। আস্থা বিনষ্ট হয় আবার আস্থা সৃষ্টি হয়। কোনো কারণে আস্থা নষ্ট হয়ে থাকলে আমি সঠিকভাবে সেটা জানি না। যদি আস্থা বিনষ্ট হয়ে থাকে তাহলে আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা কি আমরা করবো না? এখন কতটা আস্থার বিনষ্ট হয়েছে বা আদৌ হয়েছে কি না আমি সেই প্রশ্নে না গিয়ে আপনাদের বলছি আপনারা আমাদের পর্যবেক্ষণে রাখেন।

‘এখন যে সাংবিধানিক ব্যবস্থা আছে আমাদের ওপর যে দায়িত্ব আরোপ হয়েছে সাংবিধানিকভাবে আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করব যাতে ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে পারি। সেই চ্যালেঞ্জটা আমরা ভোটারদের ওপর আস্থা নিতে চাইবো’-বলেন সিইসি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নির্বাচন কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম রাশিদা সুলতানা, নির্বাচন কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহসান হাবীব খান, নির্বাচন কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর ও নির্বাচন কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমানসহ প্রমুখ।

আজ প্রথম কর্মদিবসে সকাল পৌনে ৯টার দিকে নির্বাচন ভবনে আসেন নতুন কমিশন সদস্যরা। সকাল ৯টার দিকে সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল এসে উপস্থিত হন। এর আগে ৯টা ৪১ মিনিটে আসেন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার আহসান হাবীব খান। পরে ইসি সচিব হুমায়ূন কবীর খোন্দকারের নেতৃত্বে নতুন কমিশনকে ফুল দিয়ে বরণ করেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তারা।

গত শনিবার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করেন। রবিবার বিকালে শপথ নেন নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও চারজন কমিশনার।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এই কমিশনের কার্যকাল পাঁচ বছর। সে হিসেবে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন তাদের তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ