• শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৫:০২ পূর্বাহ্ন

শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কে কত ভোট পেলেন

আমার কাগজ ডেস্ক: / ৭৫ শেয়ার
প্রকাশিত : শনিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২২

বিনোদন ডেস্ক
মাসখানেক ধরে যে আভাস পাওয়া যাচ্ছিল সেটাই সত্যি হলো। শুক্রবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনে দুটি প্যানেলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখল গোটা দেশ। একটি প্যানেল ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণদের এবং অন্যটি মিশা সওদাগর ও জায়েদ খানদের। তাদের ভোটযুদ্ধে ছিল জাতীয় নির্বাচনের মতো উৎসাহ, উদ্দীপনা এবং নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা। যা গত কোনো মেয়াদের নির্বাচনে দেখা যায়নি।

তবে শুক্রবার সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এফডিসির ভেতর এবং বাইরে হাজারো জনতা যে খবরের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন, তা হলেঅ নির্বাচনের ফলাফল। শনিবার ভোররাতে পাওয়া যায় সেই কাঙ্ক্ষিত খবর। জানা যায়, গত দুই মেয়াদের সভাপতি মিশা সওদাগরকে হারিয়ে এবার নতুন সভাপতি হয়েছেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। তবে জায়েদ খানকে সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে সরাতে পারেননি নিপুণ। তিনি স্বপদে বহাল আছেন।

এছাড়া সহসভাপতি দুটি পদেই জয় পেয়েছেন মিশা-জায়েদ প্যানেলের রুবেল ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল। এই পদে তারা হারিয়েছেন কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের রিয়াজ আহমেদ এবং ডিএ তায়েবকে। মোট ২১টি পদের ১০টি-তে কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল এবং ১১টি-তে মিশা-জায়েদ প্যানেল জয় পেয়েছে। চলুন তবে এক নজরে দেখে আসি কে কত ভোট পেয়ে শিল্পী সমিতির দায়িত্ব পেলেন। হেরে যাওয়া প্রার্থীদেরই বা কার কত কামাই-

কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল থেকে যারা জিতেছেন

ইলিয়াস কাঞ্চন (সভাপতি)- ১৯১ ভোট। সাইমন সাদিক (সহ-সাধারণ সম্পাদক)- ২১২ ভোট। চিত্রনায়িকা শাহনূর (সাংগঠনিক সম্পাদক)- ১৮৪ ভোট। আরমান (দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক)- ২৩২ ভোট। মামনুন ইমন (সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক)- ২০৩ ভোট। আজাদ খান (কোষাধ্যক্ষ)- ১৯৩ ভোট।

এছাড়া কার্যনির্বাহী সদস্য পদে জিতেছেন- ফেরদৌস আহমেদ (২৪০ ভোট, সর্বোচ্চ), অমিত হাসান (২২৭ ভোট, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ), চিত্রনায়িকা জেসমিন (২০৮ ভোট), কেয়া (২১২ ভোট)।

কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল থেকে যারা হেরেছেন

নিপুণ আক্তার (সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী)- ১৬৩ ভোট। রিয়াজ আহমেদ (সহসভাপতি প্রার্থী)- ১৫৬ ভোট। ডিএ তায়েব (সহসভাপতি প্রার্থী)- ১১২ ভোট। নিরব হোসেন (আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক প্রার্থী)- ১৩৪ ভোট। কার্যনির্বাহী সদস্য পদে- আফজাল শরীফ (১৬৩ ভোট), গাংগুয়া (৯৯ ভোট), নানা শাহ (১৬২ ভোট), পরীমনি (৭৯ ভোট), শাকিল খান (৭৯ ভোট) এবং সীমান্ত (১৭৩ ভোট)।

মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে যারা জিতেছেন

জায়েদ খান- (সাধারণ সম্পাদক)- ১৭৬ ভোট। মাসুম পারভেজ রুবেল (সহসভাপতি)- ১৯১ ভোট। মনোয়ার হোসেন ডিপজল (সহসভাপতি)- ২১৯ ভোট। জয় চৌধুরী (আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক)- ২০৫ ভোট।

এছাড়া কার্যনির্বাহী সদস্য পদে জিতেছেন- অঞ্জনা সুলতানা (২২৫ ভোট), অরুণা বিশ্বাস (১৯২ ভোট), আলীরাজ (২০৩ ভোট), চুন্নু (২২০ ভোট), মৌসুমী (২২৫ ভোট), রোজিনা (১৮৫ ভোট) এবং সুচরিতা (২০১ ভোট)।

মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে যারা হেরেছেন

মিশা সওদাগর (সভাপতি প্রার্থী)- ১৪৮ ভোট। সুব্রত চক্রবর্তী (সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী)- ১২৭ ভোট। আলেক জান্ডার বো (সাংগঠনিক সম্পাদক প্রার্থী)- ১৫৫ ভোট। জ্যাকি আলমগীর (দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক প্রার্থী)- ১০৭ ভোট। জাকির হোসেন (সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক প্রার্থী)- ১৩৬ ভোট। ফরহাদ (কোষাধ্যক্ষ প্রার্থী)- ১৪৬ ভোট।

কার্যনির্বাহী পদে হেরেছেন- আসিফ ইকবাল (১৬৮ ভোট), নাদির খান (১৭৯ ভোট), বাপ্পারাজ (১১৭ ভোট), সাংকোপাঞ্জা (৮২ ভোট) এবং হাসান জাহাঙ্গীর (১১১ ভোট)।

এছাড়া এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পদে দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থীও দাঁড়িয়েছিলেন। তারা হলেন খল অভিনেতা আশরাফুল আলম ডন এবং রবিউল ইসলাম হরবোলা। দুজনেই হেরেছেন। এর মধ্যে ডন পেয়েছেন ১১০ ভোট এবং হরবোলা পেয়েছেন সবচেয়ে কম ৪৭ ভোট।

এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ৪২৮ জন। ভোট শুরু হয় শুক্রবার সকাল ৯টায়, শেষ হয় সন্ধ্যা ৬টায়। ভোট দেন ৩৬৫ জন শিল্পী। এর মধ্যে ১০টি ব্যালট বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। বৈধ ব্যালট ৩৫৫টি। এবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে ছিলেন অভিনেতা পীরজাদা শহীদুল হারুন এবং আপিল বোর্ডের দায়িত্বে ছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ