• বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:০০ অপরাহ্ন

শারজাহ’র মাঠ মিরপুরের মতোই

স্পোর্টস ডেস্ক: / ৪০ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১

শারজাহ’র যে মাঠটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ, সেটি অনেকটাই ঢাকার মিরপুরের মত। ঢাকার এই মাঠে সাম্প্রতিক মুখোমুখি ম্যাচগুলোতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভাল করেছে বাংলাদেশ।

সাবেক টাইগার ক্রিকেটাররা বলেছেন মিরপুরের মাঠের মতোই শারজাহর মাঠ তাই মাহমুদউল্লারা সুবিধা পাবে। এছাড়া পরিসংখ্যানের বিচারে গত ৫টি মুখোমুখিতে বাংলাদেশের চেয়েও পিছিয়ে আছে শ্রীলঙ্কা।

যদিও বাছাই পর্বে স্কটল্যান্ডের হেরে যায় টাইগাররা। তারপর ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির বিরুদ্ধে দাপটের জিতে মাহমুদউল্লাহ-সাকিবরা। ফর্মে ফিরেছে টাইগার ব্যাটাররাও।

অপরদিকে নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড ও নামিবিয়ার বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা তিন ম্যাচেই বেশ দাপটের সাথে জয় তুলে নেয়। তাই ফুরফুর মেজাজে আছে দাসুন শানাকারা।

২৬ বছর পর শারজাহ’য় নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ১৯৯৫ সালের এশিয়া কাপে শেষবার এখানে খেলেছিল তারা। সব মিলিয়ে নব্বইয়ের দশকে পাঁচটি ওয়ানডে খেলেছিল বাংলাদেশ। সবকটিই হেরেছিল। তবে এবারই প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলতে নামতে যাচ্ছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

গণমাধ্যমে লেখা এক কলামে আশরাফুল লিখেছেন, ‘ম্যাচটা শারজায়। এই মাঠে ২৬ বছরে খেলেনি বাংলাদেশ। এটি দুশ্চিন্তার। তবে একটা বিষয় বলা যেতে পারে, শারজার উইকেট কিন্তু আমাদের মিরপুরের উইকেটের মতোই।’

তবে, ২৬ বছরে সময় অনেক পাল্টেছে। এসেছে নতুনের জয়গান। বাংলাদেশ ক্রিকেটও এখন ক্রিকেটের অন্যতম পরাশক্তি। এবার শারজাহয় নতুনের জয়গানে জয়ের খাতা খুলবে এমনটাই প্রত্যাশা কোটি ক্রিকেট ভক্তের।

এবার দেখা যাক কার কোথায় শক্তি

শ্রীলঙ্কার এই দলের সবচেয়ে বড় অস্ত্র ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। মাত্র ২৮ ম্যাচের ক্যারিয়ারেই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ডাক পেয়েছেন, ভিরাট কোহলির দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরে। ২৮ ম্যাচে ৪২টি উইকেট নিয়েছেন, যদিও ব্যাট হাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তেমন সফল নন এখনও কিন্তু তার হাতে বড় শট আছে এটার প্রমাণ দিয়েছেন হরহামেশাই।

সাকিব আল হাসানকে কেন্দ্র করে ব্যাটিং ও বোলিং ভিত দাঁড়াবে বাংলাদেশ দলের। বাছাইপর্বে রান ও উইকেটের তালিকায় ওপরের দিকে আছেন সাকিব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটারদের একজন সাকিব, পাকিস্তানের ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদির সাথে যৌথভাবে ৩৯ উইকেট নিয়ে উইকেট শিকারিদের তালিকায় শীর্ষে আছেন তিনি।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতেও সাকিব সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

স্পিন খেলতে পারার সহজাত ক্ষমতা রয়েছে মুশফিকুর রহিমের। স্পিন নির্ভর শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে নির্ভরতার জায়গা হয়ে উঠতে পারেন এই টাইগার ব্যাটার।

মুস্তাফিজুর রহমান এক মাস ধরেই তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতে। শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে যে ধরনের মাঠ তা মুস্তাফিজের জন্য আদর্শ। বল গ্রিপ করা, মাটি কামড়ে মুভমেন্ট নেয়া, স্লোয়ার কাটারে বাড়তি সুবিধা পেতে পারেন কাটার মুস্তাফিজ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ