• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

রাশিয়ার হামলায় পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে ইউক্রেনের এক শহর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: / ৩২ শেয়ার
প্রকাশিত : শনিবার, ১২ মার্চ, ২০২২

রাশিয়ার আগ্রাসনে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের শহর ভলনোভাখা পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে বলে দোনেস্কের গভর্নর পাভলো কিরিলেনকো শনিবার জানিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

ওই এলাকায় রুশ সেনাদের প্রতিহত করছে এখনো তীব্র লড়াই চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

কিয়েভ ইন্ডিপেন্ডেন্টের সংবাদিক ইলিয়া পোনোমারেনকো টুইটারে জানান, আমার শহর ভলনোভাখার মানব বসতি হিসেবে অস্তিত্ব শেষ হয়ে গেছে। ডনবাসের রুশভাষী দ্রুত উন্নয়নশীল শহরটি রাশিয়া পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে। ১৮৮১-২০২২। শান্তিতে থাকো আমার প্রিয় পুরোনো শহর।

এদিকে, শনিবারই ইউক্রেনের কিয়েভ অঞ্চলের ভাসিল্কিভ শহরে রাশিয়ার ছোড়া রকেটে একটি বিমানঘাঁটি ধ্বংস হয়ে গেছে।

রকেট হামলা একটি গোলাবারুদ ডিপোতেও আঘাত হেনেছে বলে ভাসিল্কিভের মেয়র নাটালিয়া বালাসিনোভিচ জানিয়েছেন।

এদিকে, রুশ সেনাদের বিশাল বহর কয়েকটি ভাগে বিভক্ত হয়ে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভকে ঘিরে রেখেছে। পাশাপাশি হামলাও চালাচ্ছে তারা।

যুক্তরাষ্ট্রের স্যাটেলাইট কোম্পানি ম্যাক্সার টেকনোলজিসের চিত্রে দেখা গেছে কিয়েভের উত্তর-পশ্চিমে বেশ কয়েকটি জায়গায় আগুনের ছবি। ইউক্রেনের হোস্টোমেলের আন্তোনোভ বিমানবন্দরে আগুনের চিত্র দেখা গেছে।

স্যাটেলাইট চিত্রে ম্যাক্সার জানিয়েছে, আমরা কিয়েভের উত্তর-পশ্চিমে মোসচুনে বাড়িঘর জ্বলতে দেখেছি। স্যাটেলাইট কোম্পানিটির দাবি, ছবিতে রাজধানীর উত্তর-পশ্চিমে শহর জুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির বিষয়গুলোও দেখা গেছে। কোথাও কোথাও সংঘর্ষও চোখে পড়েছে।

সাঁজোয়া যান, ট্যাংক ও কামান নিয়ে কিয়েভের পশ্চিম ও দক্ষিণ দিকে রুশ সেনাদের দেখা গেছে। কিয়েভের উত্তরে রুবিয়াঙ্কা শহরের কাছে রুশ সেনাদের দেখা গেছে। উত্তর–পূর্ব দিক থেকে রুশ সেনাদের একটি বহর রাজধানীর দিকে এগিয়ে আসতে দেখা গেছে।

রাজধানী এবং তার পশ্চিমে জাইটোমিরে বিমান হামলার সাইরেন বাজতে শোনা গেছে। বাসিন্দাদের বাঙ্কারে আশ্রয় নিতে সতর্ক করা হয়েছে। কিয়েভে সাংবাদিকরা ভারি গোলাগুলির শব্দ শুনতে পেয়েছেন।

কিয়েভের আশেপাশে প্রচণ্ড গোলাগুলি ও বোমা বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যাচ্ছে।

ইউক্রেনের রাজধানীর আশেপাশে লড়াই অব্যাহত আছে। শহরের প্রশাসন বলেছে বুচা, ইরপিন এবং হোস্টোমেলের পাশাপাশি কিয়েভের আরও উত্তরে ভিশোরোদ জেলাসহ উত্তরের অঞ্চলগুলো সবচেয়ে বিপজ্জনক অবস্থায় আছে। শহরের পূর্বে, ডিনিপার নদীর ওপারে ব্রোভারিতেও লড়াই চলছে।

মার্কিন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রুশ সেনারা কিয়েভকে চার দিক থেকে ঘিরে ফেলার চেষ্টা করছেন।

ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক কোম্পানি এনারগোটমের প্রধান পেট্রো কোটিন বলেন, রুশ সেনারা জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে প্রবেশ করে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করছেন।

তিনি জানান, রুশ বাহিনী প্ল্যান্টের ইউক্রেনীয় কর্মীদের বলেছে, এটি এখন রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক সংস্থা রোসাটমের অধীনে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ