• বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২:০২ পূর্বাহ্ন

ভরসা শুধুই বিআরটিসি

আমার কাগজ প্রতিবেদকঃ / ৩৫ শেয়ার
প্রকাশিত : শুক্রবার, ৫ নভেম্বর, ২০২১

গণপরিবহন ধর্মঘটের মধ্যে রাজধানীর সড়কে চলাচলকারী একমাত্র বাস বিআরটিসি। সেই ভরসায় সড়কে বের হয়েছেন অনেকে। তবে বাসের তুলনায় যাত্রী সংখ্যা অনেক বেশি। তাই বাসের বাড়তি যাত্রী হয়েই চলাচল করতে হচ্ছে নগরবাসীকে। শুক্রবার সকাল থেকে রাজধানীবাসীর ভরসার জায়গা হয়ে উঠেছে বিআরটিসি বাস।

শুক্রবার ছুটির দিন হলেও রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ১৯টি পরীক্ষা। ধর্মঘটের কারণে বাস বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন চাকরিপ্রত্যাশীরা। তাই বিআরটিসি বাসে ঠাসাঠাসি করেই গন্তব্য পৌঁছাতে হয়েছে তাদের।

১১টি রুটে বিআরটিসির তিন শতাধিক বাস রাজধানীর সড়কে চলাচল করে। ঢাকার আব্দুল্লাহপুর থেকে ফার্মগেট হয়ে মতিঝিল; বালুঘাট থেকে ফার্মগেট, ক্যান্টনমেন্ট হয়ে মতিঝিল; আব্দুল্লাহপুর থেকে মানিক মিয়া এভিনিউ হয়ে আজিমপুর; গাজীপুর থেকে ফার্মগেট হয়ে গুলশান; মিরপুর ১২ নম্বর থেকে ফার্মগেট হয়ে মতিঝিল; গাবতলী থেকে ফার্মগেট হয়ে গুলশান; গাবতলী থেকে গুলশান ১ নম্বর হয়ে খিলগাঁও; রুপনগর থেকে ফার্মগেট হয়ে মতিঝিল; মোহাম্মদপুর থেকে মহাখালী হয়ে বাড্ডা; নবীনগর থেকে ফার্মগেট হয়ে গুলিস্থান; মোহাম্মদপুর থেকে ফার্মগেট পুলিশ বক্স হয়ে গুলশান ২ রুটে চলাচল করে বিআরটিসির বাস।

শুক্রবার সকাল থেকে এসব রুটেই দেখা গেছে যাত্রীদের বাড়তি চাপ। সড়কে চলাচলকারী কোনো বাসে যাত্রী ধারণের ঠাঁই ছিল না। ঝুঁকি নিয়ে চলন্ত বাসের দরজায় দাঁড়িয়েও গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে অনেক যাত্রীকে।

এদিকে বাসে অতিরিক্ত ভিড় হওয়ায় সুবিধা নিচ্ছেন চোর ও পকেটমার চক্র। সকালে মিরপুর থেকে গুলিস্তানমুখী একটি বাসে এক যাত্রীর মোবাইল ফোন খোয়া গেছে। বাসের ভিড়ের মধ্যে পকেট থেকে তার ফোন চুরি হয় বলে জানিয়েছেন সেই ভুক্তভোগী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ