• বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ১১:২১ অপরাহ্ন

বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ পাকিস্তানের

স্পোর্টস ডেস্ক: / ৪০ শেয়ার
প্রকাশিত : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১

বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে আর জেতা হলো না। মিরপুরে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাবর আজম বাহিনী।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১২৮ রানের টার্গেট দিয়ে জয়ে কিছুটা সম্ভাবনা তৈরি হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে পাত্তাই পেল না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা। দ্বিতীয় ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশি ওপেনার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কিন্তু শুরুটা ভালো করতে পারেননি দুই বাংলাদেশি ওপেনার। ইনিংসের প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে শূন্যরানেই শাহিন আফ্রিদির বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন সাইফ হাসান। পরের ওভারে আউট হন আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখও। আউট হওয়ার আগে তিনি করেন মাত্র ২ রান।

তৃতীয় উইকেটে নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আফিফ মিলে দেখে-শুনেই খেলছিলেন। কিন্তু ব্যাট হাতে বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকা হয়নি আফিফের। সাদাব খানের বলে মোহাম্মদ রিজওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ২১ বলে করেন ২০ রান। এরপর মাহমুদউল্লাহ খেলতে নেমে ব্যাট হাতে করেছেন ১২ রান।

এদিকে ব্যাট হাতে আপনতালেই খেলতে থাকা নাজমুল হোসেন শান্ত তুলেন ৪০ রান। মাত্র ৩৪ বলে খেলা তার এই ইনিংসটি ৫টি চারে সাজানো। এরপর ব্যাট হাতে ক্রিচে দাঁড়াতে পারেননি কেউই। নুরুল ১১ রানে, মেহেদি ৩ রানে আউট হন। আর ৬ রানে আমিনুল এবং ১ রানে তাসকিন অপরাজিতক থাকেন।

এদিকে পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট নেন শাহিন শাহ আফ্রিদি এবং সাদাব খান। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন দুজন বোলার।

ছোট লক্ষ্যকে সামনে রেখে খেলতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি সফররত পাকিস্তানের। মোস্তাফিজুর রহমানের করা ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বোল্ড হন ওপেনার বাবর আজম। আউট হওয়ার আগে করেন মাত্র ১ রান।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে রিজওয়ান-জামান মিলে ৮৫ রানের জুটি গড়লে দলকে সহজ জয়ের দিকেই নিয়ে যান তারা। তবে শেষ পর্যন্ত খেলে যেতে পারেননি রিজওয়ান। টাইগার লেগ স্পিনার আমিনুলের করা বলে সাইফ হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। আউট হওয়ার আগে করেন ৩৯ রান।

এদিকে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন দ্বিতীয় উইকেটে খেলতে নামা ফখর জামান। ব্যক্তিগত অর্ধশতক পূর্ণ করার পর অপরাজিত থাকেন ৫৭ রানে। ৫১ বলে খেলা তার এই ইনিংসটি ২টি চার এবং ৩টি ছয়ে সাজানো। এদিকে ৬ রানে অপরাজিত থাকেন হায়দার আলি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ