• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন

পিস্তল ঠেকিয়ে জায়েদ খানের হুমকি: যা বললেন ওমর সানী

বিনোদন ডেস্ক: / ১৪ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ১২ জুন, ২০২২

ওমর সানী-জায়েদ খান ইস্যুতে উত্তাল ঢালিউড। অভিযোগ উঠেছে— চিত্রনায়ক ওমর সানীকে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলির হুমকি দিয়েছেন আরেক নায়ক জায়েদ খান।

শুক্রবার রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে এমন ঘটনা ঘটেছে।

হঠাৎ কী হলো যে, বিয়ের মতো আনন্দঘন অনুষ্ঠানে ঝগড়া বাঁধল, আর সেই ঝগড়ায় পিস্তল উঠল জায়েদের হাতে।

জানা গেছে, জায়েদ খানের ওপর আগে থেকেই ক্ষুব্ধ ছিলেন ওমর সানী। তিনি জায়েদ খানকে খুঁজছিলেন। ডিপজলের ছেলের বিয়েতে তাকে পাবেন, এটি জেনেই সেখানে যান সানী।

এবং ঝগড়ার সূত্রপাত তার থেকেই।

জায়েদের পিস্তল বের করা দেখে ডিপজল উঠে দাঁড়ান। বলেন, এই আমার ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান। এত বড় অনুষ্ঠান, এত মানুষ— এসব কী। অনেক মানুষ থাকায় কেউ টের পায়নি। এর পর ওমর সানীকে ডেকে ডিপজল বলেন, খাইয়া যাবা না?

সানী বলেন, আমার মাথা গরম। আমি খাব না।

এর পর গাড়ি চালিয়ে বের হয়ে যান ওমর সানী। সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনা ঘটেছে। ওমর সানী বের হওয়ার আধাঘণ্টা পর জায়েদ খানও বের হয়ে যান।

ঘটনাটি নিয়ে ঢালিউডপাড়া থেকে শুরু করে উত্তাল দেশের সিনে অঙ্গন, তখন এর সত্যতা স্বীকার করেছেন ওমর সানী।

সাংবাদিকদের ওমর সানী বললেন, ‘আমি জায়েদ খানকে চড় মেরেছি। কিন্তু কী কারণে মেরেছি, সেটিও তো জানতে হবে সবাইকে। আর চড় মারার পর আমাকে মারতে সে পিস্তল বের করবে! কত্ত বড় সাহস!’

ওমর সানী বলেন, ‘বেয়াদবির একটা সীমা আছে। ও (জায়েদ) ইন্ডাস্ট্রিতে থেকে সবার সঙ্গে বেয়াদবি করবে, সব মেয়ে মানুষের সঙ্গে বিকৃত আচরণ করবে, এসবের একটা সীমারেখা আছে। সে মৌসুমীর সঙ্গে বেয়াদবি করার চেষ্টা করেছে। আরও কিছু বিষয় আছে। তাই এমন করেছি। ইন্ডাস্ট্রির ক্ষতি, মানুষের ক্ষতি করতে করতে জায়েদের সাহস বেড়ে গেছে। কেউ কথা বলছিল না। চড় দিয়ে আমি না হয় শুরু করেছি। জায়েদ খান চরম বেয়াদবি করছিল।

ঘটনার বর্ণনা দেন ওমর সানী, ‘আমি গিয়েই চড় মেরেছি। সে আমাকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দিয়েছে। তখন আমি একটি গালি দিয়েছি তাকে (সরি ফর মাই ল্যাঙ্গুয়েজ)। এ সময় রোজিনা আপা, অঞ্জনা আপা, সুচরিতা আপা উনারা উপস্থিত ছিলেন। এর চেয়ে বেশি কিছু আপাতত বলতে পারব না।’

ওমর সানী আরও বলেন, ‘জায়েদ খান তো সবসময় পিস্তল নিয়ে ঘোরে। আমার কথা হচ্ছে—ইন্ডাস্ট্রিতে ওর অত্যাচার সহ্য করতে করতে অনেকেই বিরক্ত। কেউ হয়তো মুখ ফুটে বলে না মানসম্মান হারানোর ভয়ে। আমি ভাবলাম, আর দেরি নয়, এখনই শুরু করতে হবে। তাই চড়টা দিয়ে শুরু করলাম। আমি চড় মেরেই বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে বের হয়ে যাই।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ