• বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

নিয়ম রক্ষার ম্যাচে ভারতের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক: / ৩৬ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১

 

দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে শেষ ম্যাচে রোহিত-রাহুলের ফিফটিতে নামিবিয়াকে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। ফলে সেমিফাইনালে উঠতে না পারলেও জয়ের মাধ্যমেই বিশ্বকাপ মিশন শেষ করল বিরাট কোহলিরা। ম্যাচের শুরুতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৩২ রান সংগ্রহ করে নামিবিয়া। জবাবে খেলতে নেমে ১৫.২ বলে মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় ভারত।

ছোট রান তাড়া করতে নেমে কোনো চাপই নেয়নি ভারত। ওপেনিং জুটিতে রোহিত শর্মা এবং লোকেশ রাহুল মিলে মাত্র ৫৯ বলে তুলেন ৮৬ রান। এর মধ্যেই অর্ধশতক পূর্ণ করে ফেলেন রোহিত। ফ্রাইলিঙ্কের বলে আউট হওয়ার আগে মাত্র ৩৭ বল খেলে করেন ৫৬ রান। তার ইনিংসটি ৭টি চার এবং ২টি ছয়ে সাজানো।

এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সূর্যকুমার যাদবকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল। এ সময় দুজন মিলে অপ্রতিরোধ্য ৫০ রানের জুটি গড়েন। এদিকে রোহিতের পর হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন রাহুলও। ৩৬ বলে ৫৪ রান করে অপরাজিত থঅকেন তিনি। আর সূর্যকুমার অপরাজিত থাকেন ২৫ রানে।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে নামিবিয়াকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ব্যাট হাতে শুরুটা ভালই ছিল নামিবিয়ার। কিন্তু বেশিক্ষণ ক্রিজে অবস্থান করা হয়নি ওপেনার মিচেল ভ্যান লিনগ্যানের। আউট হয়েছেন ব্যক্তিগত ১৫ রানে। পরের উইকেটে খেলতে নেমে রানের দেখাই পাননি ক্রেইগ উইলিয়াম। আর আরেক ওপেনার স্টিফেন বার্ড আউট হন ২১ রানে।

ভালো শুরুর পরও দ্রুত উইকেট হারিয়ে বেশ চাপেই পড়ে নামিবিয়া। এরপর সময় গড়িয়েছে আর একের পর এক উইকেটের পতন ঘটেছে। ১২ রানে ফেরেন দলীয় অধিনায়ক জেরার্দ ইরাসমাস। এছাড়া ৫ রান করতে পেরেছেন লফটি ইয়াটন।

এদিকে ব্যাট হাতে খুঁটি গেড়ে খেলতে থেকে দলীয় স্কোরটা কিছুটা বড় করার চেষ্টা চালিয়ে যান অলরাউন্ডার ডেভিড ওয়াইস। আউট হওয়ার পূর্বে করেছেন নামিবিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ ২৬ রান। এছাড়া ৯ রানে স্মিট এবং শূন্যরানে ফেরেন জানে গ্রিন। আর শেষ পর্যন্ত খেলে গিয়ে ১৫ রানে ফ্রাইলিঙ্ক এবং ১৩ রানে ট্রাম্পলম্যান অপরাজিত থাকে।

ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ তিনটি করে উইকেট নেন রবিন্দ্রো জাদেজা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এছাড়া দুটি উইকেট পেয়েছেন জাস্প্রিত বুমরাহ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ