• বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

নাম পাল্টেও পার পেল না শিমলার ‘প্রেম কাহন’

প্রতিবেদকের নাম / ৪৪ শেয়ার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১

বিনোদন ডেস্ক:

‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’। তরুণ নির্মাতা রুবেল আনুশের একটি সিনেমা। যেখানে একটি বয়স্ক নারীর সঙ্গে এক কিশোরের অসম প্রেম দেখানো হয়েছে। এই দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘ম্যাডাম ফুলি’ খ্যাত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা শিমলা এবং ঘেটুপুত্র খ্যাত মামুন।

২০১৪ সালে শুরু হয়েছিল এই সিনেমার কাজ। শুরু থেকেই সিনেমার নাম ও কয়েকটি দৃশ্য নিয়ে আপত্তি ছিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের। পরে নাম পাল্টে সিনেমাটির নাম রাখা হয় ‘প্রেম কাহন’। সাত বছর পর এই নামেই কিছু দিন আগে সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হয়।

কিন্তু তাতেও পার পেল না শিমলা অভিনীত ‘প্রেম কাহন’। সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা সিনেমাটিকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ সিনেমার গল্পে লাশের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক, অসম প্রেম, এবং মাত্রাতিরিক্ত গালাগালি রয়েছে। যা দর্শকের দেখার উপযুক্ত নয় বলে মত সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন বোর্ড সদস্য বলেছেন, ‘সিনেমাটিতে অনেক বেশি পরিমাণে গালিগালাজ রয়েছে। আবার এর গল্পে এমন কিছু বিষয় দেখানো হয়েছে, যা আমাদের সমাজ সংস্কৃতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এ সিনেমা সেন্সর দিলে আমাদের সমাজে বিরূপ প্রভাব পড়বে।’

এ বিষয়ে নির্মাতা রুবেল আনুশ বলেন, ‘এখনো বোর্ডের চিঠি পাইনি। তবে খবরটি শুনেছি। আমার সিনেমায় কোনো অ্যাডাল্ট দৃশ্য রাখিনি। গালি ছিল, তা মিউট করা হয়েছে। বোর্ড যে অংশ সংশোধন করতে বলেছে, সেটা করলে গল্প থাকবে না। সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছা ছিল। যেহেতু তা হচ্ছে না, তাই আপাতত ওটিটিতে মুক্তি দেওয়া হবে।’

‘প্রেম কাহন’ রুবেল আনুশের প্রথম সিনেমা। বিতর্কিত গল্পের এই সিনেমায় চিত্রনায়িকা শিমলা ও মামুন ছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, শিমুল খান, রুমাই নোভিয়া, পুলক, বাপ্পী, লাবণী ও সাদিয়া।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ