• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীর রায়পুরায় দুই পক্ষের টেঁটাযুদ্ধে নিহত ১, আহত ১৫

প্রতিবেদকের নাম / ১৯ শেয়ার
প্রকাশিত : বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০২২

রায়পুরা (নরসিংদী) থেকে দিদার মিয়া
নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ও সাবেক দুই ইউপি সদস্য (মেম্বার) সমর্থকদের মধ্যে সৃষ্ট টেঁটাযুদ্ধে মফিজ মিয়া (৬০) নামে একজন নিহত হয়েছে। এসময় টেটাবিদ্ধ হয়ে অন্তত ১৫জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
আহতদের মধ্যে যাদের নাম জানা গেছে তারা হলেন, আছমা বেগম (৩৫), জয়নাল আবেদীন (৭০), খলিলুর রহমান (৬০), মঈনুদ্দিন (৫৫), জোনায়েদ (১৮), সুমন (৩২) ও মুন্না (১৮)।
আজ বুধবার (১৩ জুলাই) উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়নের গজারিয়া কান্দি গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
জানা যায়, উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়নের গজারিয়া কান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বর্তমান ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাজী আব্দুল খালেক ও সাবেক ইউপি সদস্য শাহ আলমের সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্ধ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে বুধবার ঘটনার দিন সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে স্থানীয় চায়ের দোকানে একটি বাচ্চার’ খেলাকে কেন্দ্র কুন্দোইল্লা বাড়ীর মফিজ ও হাছোইন্না বাড়ীর খালেক হাজীর সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। পরে এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ টেঁটা যুদ্ধে লিপ্ত হয়। এসময় প্রতিপক্ষের টেঁটার আঘাতে মফিজ উদ্দিন গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় আহত হয় আরো অন্তত ১০জন। আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে রায়পুরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) গোবিন্দ সরকার জানান, সিনিয়র অফিসারগণ সহ আমরা এলাকা পরিদর্শনে এসেছি। পরবর্তি সহিংসতা এড়াতে এলাকায় পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ইমরানা জেবিন জানায়, বুধবার দুপুর আনুমানিক দেড়টার সময় অস্ত্রবিদ্ধ অবস্থায় মৃত একজনকে আনা হয়। তারপর তার মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এছাড়াও আরোও ৬জনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। এদের মধ্যে ৩ জনকে নরসিংদী সদরে প্রেরণ করা হয়েছে। আর বাকি ৩জনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ