• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন

নবীর দেখানো পথে চলতে হবে : প্রধান বিচারপতি

আমার কাগজ ডেস্ক: / ১৩ শেয়ার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২২

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেছেন, নবী মুহাম্মদ (সা.) পৃথিবীর সবচেয়ে মানবিক মানুষ ছিলেন। তিনি শত্রুর সঙ্গেও মানবিক আচরণ করেছেন। অন্য ধর্মের মানুষের প্রতি মানবিক আচরণ করেছেন। ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি যেন না হয় তিনি বিদায় হজে বলে গেছেন। নবীর দেখানো পথই হচ্ছে সহজ-সরল পথ। নবীর দেখানো পথে আমাদের চলতে হবে।

সোমবার সন্ধ্যায় সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে ‘হযরত মুহাম্মদ (সা.) এবং একটি মানবিক বিশ্ব’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রতিমা ভাঙার অভিযোগে আজও কয়েকটি মামলার শুনানি হয়েছে। এটি কেন হবে? যখন গুজরাটে দাঙ্গা হলো তখন আমরা সেক্যুলার সরকারের কথা বলেছি। যদি সেক্যুলার সরকার হতো তাহলে হয়তো এ ঘটনা ঘটতো না। কিন্তু আমাদের এখানে যখন তেমন ঘটনা ঘটে, তখন আমরা সেক্যুলার থাকি না।

তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী এদেশে প্রত্যেক নাগরিকের সমান অধিকার। কেন হিন্দুরা ভাববে তারা মাইনরিটি? সবাই এদেশের নাগরিক। আমাদের নতুন করে ভাবতে হবে। রাসুলের পথে আমাদের চলতে হবে। তার পুরো জীবনই অনুকরণীয়।

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, আমরা প্রতিদিন নামাজে সুরা ফাতিহা পড়ি। যেখানে একটি আয়াত আছে, যে আয়াতের সরল অর্থ হলো- আল্লাহ আমাদের সহজ-সরল পথ দেখান। এখন কথা হলো সেই সহজ-সরল পথ কোনটি। সহজ-সরল পথ, যেটা আমাদের রাসুল (সা.) দেখিয়ে গেছেন। দুনিয়ার কোনো সম্পদ যাকে আকর্ষণ করেনি। তিনি মানুষের সঙ্গে যে আচরণ করেছেন, তা ছিল মানবিক। তিনি একজন শত্রুর সঙ্গেও মানবিক আচরণ করেছেন। অথচ আমরা কীভাবে দুর্নীতি করে সহায়-সম্পদ গড়ে তুলব, কীভাবে বাড়ি-গাড়ি করব তা নিয়ে ব্যস্ত থাকি। আমাদের এখান থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, করোনা মহামারি থেকে আমরা কতটুকু সতর্ক হয়েছি? তারপরও আমরা দুর্নীতি করে যাচ্ছি। মানুষ ঠকাতে যা ইচ্ছা তাই করে যাচ্ছি। প্রশ্ন হলো হাশরের মাঠে আমরা আল্লাহর কাছে কী জবাব দেব? রাসুল আমাদের কী শিখিয়ে গেছেন, আর আমরা কী করে বিদায় নিচ্ছি!

প্রধান বিচারপতি বলেন, এই করোনায় ২৬২ জন বিচারক ও আইনজীবী মারা গেছেন। করোনায় কত লোক চলে গেল, তারপরও আমরা কি সতর্ক হয়েছি? এর থেকে আমরা কি কোনো শিক্ষা নেব না? আমরা কতটা মানবিক হয়েছি?

নবী (সা.) জীবনে অনেক কম্প্রোমাইজ করে হুদায়বিয়ার সন্ধিসহ অনেক কাজ করেছেন। যদিও তাতে মুসলমানদেরই বিজয় হয়েছে। বিশ্বের প্রথম লিখিত সনদ মদিনার সনদের মাধ্যমে সব সম্প্রদায়ের মাধ্যমে এক জাতি গঠনের কথা বলা আছে। ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি যাতে না হয় সেটিও বলা আছে।

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোমতাজ উদ্দিন ফকিরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান, বিচারপতি বোরহান উদ্দিন, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, সিনিয়র আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন প্রমুখ। এ সময় হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিসহ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন। আইনজীবী সমিতির সম্পাদক আব্দুন নূর দুলাল অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ