• সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৫:৩১ অপরাহ্ন

ঢাবির সাবেক অধ্যাপকের সন্দেহভাজন ‘খুনি’ আটক

আমার কাগজ প্রতিবেদকঃ / ৫৬ শেয়ার
প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২২

তিন দিন নিখোঁজ থাকার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক সাইদা গাফফার খালেকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তিনি হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে দাবি করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে হুদা জানান, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গাইবান্ধা থেকে আনারুল ইসলাম (২৫) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। ঢাকায় আসার পথে তিনি হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন। লাশ কোথায় রেখেছেন সেটা বলেছেন। তার কথা অনুযায়ী আমরা লাশ উদ্ধার করি।

ওসি জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে কাশিমপুরের পানিশাইল এলাকায় সাইদার ভাড়া বাসার পাশ থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, মোবাইল নাম্বার ট্র্যাক করে গাইবান্ধায় আনারুলের অবস্থান শনাক্ত করা হয়। পরে সেখানকার স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় তাকে আটক করা হয়।

গত বুধবার সন্ধ্যা থেকে নিখোঁজ ছিলেন ঢাবির সাবেক অধ্যাপক সাইদা গাফফার খালেক। সেই রাতেই থানায় সাধারণ ডায়েরিও করা হয়।

ঢাবির ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. শিকদার মনোয়ার মুর্শেদ ঢাকা টাইমসকে জানান, অধ্যাপক সাইদা বছর-ছয়েক আগে অবসরে যান। তিনি একা থাকতেন। তার স্বামী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। তিনি কয়েক বছর আগে মারা গেছেন। তার সন্তানেরা বিদেশে থাকেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ