• সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন

ছাত্র অধিকার পরিষদের ২৪ নেতাকর্মী কারাগারে

আমার কাগজ ডেস্ক: / ১৮ শেয়ার
প্রকাশিত : শনিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২২

মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে রাজধানীর শাহবাগ থানায় করা মামলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা (ঢাবি) ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি আকতার হোসেনসহ ২৪ জনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ শনিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম এই আদেশ দেন।

ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আজ দুপুরে এই আবেদন করেন শাহবাগ থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মুহাম্মদ আরিফুল হক তপু। শুনানি শেষে বিচারক কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) নিজাম উদ্দিন এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

জিআরও বলেন, মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেন, মো. সাদ্দাম হোসেন, মো. তসলিম হোসাইন অভি, আব্দুল কাদের, মো. তরিকুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ, নাজমুল হাসান, রাকিব, আরিফুল ইসলাম, আসিফ মাহমুদ, তাওহীদুল ইসলাম তুহিন, এইচএম রুবেল হোসেন, ইউসুফ হোসেন, মিজান উদ্দিন, বেলাল হোসেন, ওমর ফারুক জিহাদ, আবু কাউছার, জাহিদ আহসান, মোয়াজ্জেম হোসেন রনি, সানাউল্লাহ, শাহ ওয়ালিউল্লাহ, মো. রাকিব, সাজ্জাদ হোসেন পারভেজ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে গতকাল শুক্রবার আবরার ফাহাদের স্মরণ সভায় ছাত্র অধিকার পরিষদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। হামলার পরই ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজিম উদ্দীন। মামলায় ছাত্র অধিকার পরিষদের ২৪ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এর আগে, হামলার পর গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ঐ ঘটনায় আহত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজিম উদ্দীন বাদী হয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ অজ্ঞান নামা ১৪০-১৫০ জনের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। মামলা নম্বর ১৫(১০)২২।

এজাহারে নাজিম উদ্দীন ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ অজ্ঞাতনামা ১৪০-৫০ জনের বিরুদ্ধে রাজু ভাস্কর্যের সামনে তাদের ওপর হামলা ও চিকিৎসা গ্রহণ করতে গেলে সেখানেও তাদের ওপর হামলার অভিযোগ করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ