• রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন

ওয়ানডেতেও ওভার রেটের শাস্তিসহ অনেক পরিবর্তন আনলো আইসিসি

স্পোর্টস ডেস্ক: / ১৮ শেয়ার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২

ক্রীড়া ডেস্ক
প্রধান নির্বাহী কমিটির (সিইসি) সুপারিশের ভিত্তিতে সৌরভ গাঙ্গুলির নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট কমিটির বৈঠকের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) মঙ্গলবার প্লেয়িং কন্ডিশনে বেশ কিছু পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে, যা আগামী ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে।

বদলে যাওয়া নিয়মগুলোর মধ্যে একটি হলো, ক্যাচ আউটের সময় দুই ব্যাটসম্যানের প্রান্ত বদল। আগে ফিল্ডার ক্যাচ ধরার আগে দুই ব্যাটসম্যান পরস্পরকে অতিক্রম করলে নতুন ব্যাটসম্যানকে নন স্ট্রাইকার প্রান্তে ইনিংস শুরু করতে হতো। কিন্তু এই নিয়ম আর থাকছে না।

নতুন নিয়মে ক্যাচ ধরার সময় দুই ব্যাটসম্যান পরস্পরকে অতিক্রম করলেও স্ট্রাইকে ইনিংস শুরু করবেন নতুন ব্যাটসম্যান। শুধু ওভারের শেষ বলে ব্যাটসম্যান ক্যাচ আউট হলে স্বাভাবিকভাবে যেমন বোলিং প্রান্ত বদল হয়, তখন নতুন ব্যাটসম্যানকে নন স্ট্রাইক প্রান্ত থেকে ইনিংস শুরু করতে হবে।

এছাড়া মানকাডিং আউটের বিতর্কেও ইতি টানা হলো। আগে বোলার বল করার সময় নন স্ট্রাইকে থাকা ব্যাটসম্যান বেরিয়ে গেলে তাকে রান আউট করার বিষয়টি ক্রিকেটীয় চেতনাবিরোধী হিসেবে গণ্য হতো। যদিও আউটের বিধান ছিল। অক্টোবর থেকে এটি বৈধ, এটি হবে রান আউট। ল-৪১ (আনফেয়ার প্লে) হিসেবে এতদিন অন্তর্ভুক্ত থাকলেও এটি ল-৩৮ (রান আউট) এর মধ্যে জায়গা করে নিচ্ছে।

ওয়ানডে ও টেস্টে এখন থেকে দুই মিনিটের মধ্যে নতুন ব্যাটসম্যানকে প্রথম বলের জন্য স্ট্রাইকে আসতে হবে, আগে এই সময়টা ছিল তিন মিনিট। টি-টোয়েন্টিতে আগের মতোই ৯০ সেকেন্ড সময় থাকছে। যদি কোনও ব্যাটসম্যান দুই মিনিটের মধ্যে না দাঁড়ান স্ট্রাইকে, তাহলে ফিল্ডিং অধিনায়ক টাইম আউটের আপিল করতে পারবেন।

করোনা মহামারির শুরুতে বলে লালার ব্যবহার প্রাথমিকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, এবার এটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হলো। বল উজ্জ্বল করতে যদি লালা ব্যবহার করা হয় তাহলে সেটা বল বিকৃতির মতো অবৈধ হবে।

নতুন মাস থেকে বোলার বল করার জন্য দৌড় শুরুর পর ফিল্ডিং দল তাদের অবস্থান পরিবর্তন করতে পারবেন না। তাহলে ব্যাটিং দলকে পাঁচ রান দেওয়া হবে এবং ওই বোলারের ডেলিভারি ডেড বল হবে।

ডেলিভারির আগে যদি স্ট্রাইকে থাকা কোনও ব্যাটসম্যান উইকেট ছেড়ে আসতেন, তাহলে আগের নিয়ম অনুযায়ী বোলাররা বল ছুড়ে তাকে রান আউট করতে পারতেন। কিন্তু এখন থেকে এই প্রচেষ্টা ডেড বল ধরা হবে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে শুধুমাত্র টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ চলাকালে স্লো ওভার রেটিংয়ের শাস্তি দেওয়া হতো। এখন থেকে এই নিয়মটি ওয়ানডেতেও চালু হবে।

এখন থেকে ছেলে ও মেয়েদের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে হাইব্রিড পিচ ব্যবহার করা যাবে, সেক্ষেত্রে অংশগ্রহণকারী দুই দলের সম্মতি লাগবে। বর্তমানে কেবল মেয়েদের টি-টোয়েন্টিতে হাইব্রিড পিচ ব্যবহার করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ