• শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন

ইথিওপিয়ায় ফের ক্ষমতায় আবি আহমেদ

র্স্পোটস ডেস্কঃ / ২২ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ১১ জুলাই, ২০২১

ইথিওপিয়ার জাতীয় নির্বাচনে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। এর মাধ্যমে আরও ৫ বছর ক্ষমতায় থাকছেন শান্তিতে নোবেলজয়ী এ রাষ্ট্রনেতা। আফ্রিকার দেশটির ৪৩৬ আসনের মধ্যে ৪১০টিতে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন প্রসপারিটি পার্টি।

শনিবার (১১ জুলাই) ফলাফল ঘোষণা করে দেশটির জাতীয় নির্বাচন বোর্ড। এর আগে গত ২১ জুন সংঘাতের মধ্যে ইথিওপিয়ায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। রাজনৈতিক উত্তেজনায় কিছু আসনে ভোটগ্রহণ হয়নি। সেগুলো আপাতত শূন্য থাকার কথা জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

তবে বিবিসি জানিয়েছে, অনিরাপত্তাসহ বিভিন্ন কারণে দেশটির ভোটারদের বড় একটি অংশ ভোট দিতে পারেননি।

ইথিওপিয়ার কয়েকটি বিরোধী দল গত মাসে অনুষ্ঠিত নির্বাচন বর্জন করে। তাদের অভিযোগ ক্ষমতাসীন পার্টি দেশের উত্তরাঞ্চলীয় টাইগ্রেতে সামরিক হয়রানি ও ভয়ভীতি অব্যাহত রেখেছে। সেখানে সরকারি বাহিনী গত নভেম্বর মাস থেকে বিদ্রোহী সশস্ত্র দলের সঙ্গে লড়াইয়ে লিপ্ত রয়েছে। সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় প্রাণ হারিয়েছে শত শত বেসামরিক মানুষ।

যুদ্ধবিধ্বস্ত টাইগ্রে অঞ্চলে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়নি। সেখানে হাজার হাজার মানুষ দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতিতে বসবাস করছেন। আগামী ৬ সেপ্টেম্বর দেশটির বিভিন্ন এলাকায় আরেক দফা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে টাইগ্রেতে কবে নির্বাচন হবে তা এখনো নিশ্চিত নয়।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে প্রথমবার ক্ষমতায় আসেন আবি আহমেদ। আর ২০১৯ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান তিনি। ইরিত্রিয়ার সঙ্গে এক যুগান্তকারী শান্তি চুক্তি করে এই সম্মানে ভূষিত হন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ।

গত শতকের নব্বইয়ের দশক থেকে চুক্তিটি হওয়ার আগ পর্যন্ত সংঘাতে জড়িয়ে ছিল দুই দেশ।

প্রথমবার ক্ষমতায় আসার পরপরই ইথিওপিয়ায় ব্যাপক আকারে উদারমনা সংস্কার শুরু করেন আবি আহমেদ। তার এসব পদক্ষেপ বিশ্বজুড়ে প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। তিনি কয়েক হাজার বিরোধী কর্মীদের কারাবাস ও নির্বাসিত ভিন্নমতপোষণকারীদের বাড়ি ফেরার সুযোগ করে দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ

পুরাতন সব সংবাদ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
%d bloggers like this: