• সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:০৮ অপরাহ্ন

ইউক্রেন আক্রমণ করলে রাশিয়াকে কড়া জবাব দিবে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ / ৩২ শেয়ার
প্রকাশিত : বুধবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২১

ইউক্রেনে আক্রমণ হলে রাশিয়াকে কঠোর পরিণতি ভোগ করতে হবে, এমন হুঁশিয়ারি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বাইডেনের এটিই প্রথম ভার্চ্যুয়াল বৈঠক।

ইউক্রেন ইস্যুতে মঙ্গলবার ভার্চুয়ালি বৈঠকে অংশ নেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এ সময় পুতিনকে সতর্ক করে দেন বাইডেন। তবে ইউক্রেনে আক্রমণের ইচ্ছে নেই বলে মন্তব্য করেছেন পুতিন।

ইউক্রেন ইস্যুতে মাসখানেক ধরে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের দ্বন্দ্ব চলছে। বিশেষ করে সীমান্তে রুশ সেনা মোতায়েনের পর থেকেই ওই অঞ্চলে উত্তেজনা বেড়েছে বলে অভিযোগ করে আসছে কিয়েভ। এ বিষয়ে মস্কোকে হুমকি দিয়ে আসছে পশ্চিমা দেশগুলো।

এমন পরিস্থিতিতেই দুই পরাশক্তি দেশের নেতা ভার্চুয়ালি বৈঠকে বসেন। বৈঠকে বাইডেন ইউক্রেন প্রসঙ্গে পুতিনকে কড়া ভাষায় কথা বলেছেন বলে জানিয়েছে ওয়াশিংটন।

বৈঠকে পুতিন ইউক্রেনের বিরুদ্ধে উসকানির অভিযোগ আনার পাশাপাশি সীমান্তের পূর্ব দিকে ন্যাটোর সম্প্রসারণের বিষয়টি তুলেন ধরেন।

এই দুই নেতার প্রায় দুই ঘণ্টার আলোচনা শেষে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান। বলেন, ‘প্রয়োজনে কঠোর জবাব দিতে প্রস্তুত আছে ওয়াশিংটন। বিশেষ করে ২০১৪ সালে রাশিয়া ক্রিমিয়া দখলে নেওয়ার সময় যা করিনি আমরা তা এখন করতে প্রস্তুত’।

সীমান্তে রাশিয়ার হাজার হাজার সেনা মোতায়নের বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে মস্কোর ওপর ‘দৃঢ় অর্থনৈতিক ও অন্যান্য পদক্ষেপ’ নেওয়ার হুমকি দেন বাইডেন।

কিয়েভ দাবি করে আসছে, ইউক্রেনের সীমান্তের কাছাকাছি কয়েকটি এলাকায় প্রায় ৯৪ হাজারের মতো রুশ সেনা অবস্থা করছে। ফলে যেকোনও সময় বড় ধরনের সংঘাতের আশঙ্কা রয়েছে।

তবে সংঘাতের আশঙ্কা কমাতে এবং কূটনৈতিক পথে ফিরে আসতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বানও জানান বাইডেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ