• বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

ইউক্রেনে আরও ৭০০ বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

আমার কাগজ ডেস্ক: / ৩২ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

ইউক্রেনে আরও ৭০০ বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। আজ সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কয়েকজন সাংবাদিকের মুখোমুখি হয়ে এ তথ্য জানান তিনি। তিনি বলেন, ইউক্রেন থেকে চার শতাধিক বাংলাদেশি নাগরিক পোল্যান্ড, রোমানিয়া ও অস্ট্রিয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন।

তিনি বলেন, এ সংখ্যা আরও বাড়তে থাকবে। আজ এ সংখ্যা পাঁচ শতাধিক ছাড়িয়ে যেতে পারে। তবে ইউক্রেনে এখনও আরও ৭০০ বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন। ইউক্রেনে আটকা পড়াদের দেশে ফেরাতে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএমের সঙ্গে সরকার কাজ করছে জানিয়ে শাহরিয়ার আলম বলেন, যারা ইউক্রেনে আটকা পড়েছেন তাদের নিরাপদ অবস্থানে নিতে আইওএম আমাদের সহযোগিতা করবে। ইউক্রেন থেকে অন্যদেশে প্রত্যাবর্তন করা বাংলাদেশিদের দেশে ফেরানোর ক্ষেত্রেও আইমওএম সহযোগিতা করবে।

ইউক্রেন থেকে তিন দেশে আশ্রয় নেওয়া বাংলাদেশিদের মধ্যে বেশিরভাগই দেশে ফিরতে রাজি নয় বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত ৫০ জনের ওপরে দেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তবে বেশিরভাগই দেশে ফিরতে রাজি না। যারা দেশে ফিরতে চায়, তাদের ফেরাতে একটু সময় লাগবে। এদিকে, রোববার রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইউক্রেন থেকে পোল্যান্ড বর্ডার দিয়ে এখন পর্যন্ত দেশটিতে আশ্রয় নিয়েছেন ৪০০ জন বাংলাদেশি, এদের মধ্যে ৪৬ জন ওয়ারশতে বাংলাদেশ দূতাবাসের ব্যবস্থায় অস্থায়ী আশ্রয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে হাঙ্গেরিতে ১৫ জন এবং রোমানিয়ায় তিনজন বাংলাদেশি আশ্রয় নিয়েছেন।

ইউক্রেনে বাংলাদেশের কোনো দূতাবাস নেই। পোল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাস সেখানকার যোগাযোগ রক্ষা করে। ইউক্রেনে ঠিক কত বাংলাদেশির অবস্থান বা বসবাস তার সঠিক পরিসংখ্যান নেই সরকারের কাছে। তবে ওয়ারশর বাংলাদেশ দূতাবাসের ধারণা, দেড় হাজারের মতো বাংলাদেশি দেশটিতে অবস্থান করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ