• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৮:২৩ অপরাহ্ন

আর্জেন্টিনার পতাকার রঙ নিয়ে ছুটছে অটোরিকশা

প্রতিবেদকের নাম / ১৫ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২২

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ ফুটবল যতই ঘনিয়ে আসছে ততই উন্মাদনা বাড়ছে ফুটবলপ্রেমিদের। এর হাওয়া লেগেছে দেশের সীমান্ত ঘেষা জেলা কুড়িগ্রামেও। এরই মধ্যে নিজের অবস্থান জানান দিচ্ছেন বিশেষ করে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের ফুটবল ভক্তরা।

গত তিনদিন ধরে কুড়িগ্রাম পৌর শহরে দেখা মিলছে আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে রাঙানো ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার। শহরের ধরলা ব্রিজ সংলগ্ন একতা পাড়ার অটোচালক আশরাফুল আলম তার নিজের অটোরিকশাটি আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে রাঙিয়ে পথচারীসহ মানুষের দৃষ্টি আর্কষন করছেন। শহরের রাস্তায় চলাচলের সময় তার রিকশার রঙ থেকে সমর্থন বুঝতে পারছেন পথচারীরা।

জানা গেছে, ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত আশরাফুল আলম। তার তিন বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালিয়ে তিনি জীবিকা নির্বাহ করেন। পছন্দের দলের প্রতি সমর্থন এবং শুভ কামনা জানাতে নিজের জীবিকা নির্বাহের বাহনটি আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে রাঙিয়েছেন তিনি।

রোববার (১৩ নভেম্বর) আলাপকালে আশরাফুল আলম বলেন, ছোট বেলা থেকেই টিভির পর্দায় ফুটবল বিশ্বকাপ দেখেন তিনি। তার পছন্দের দল আর্জেন্টিনা। এই ভালোবাসা থেকেই তিনি অটোরিকশাটি আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে রাঙিয়েছেন। আশরাফুলের বিশ্বাস এবার ফুটবল বিশ্বকাপটি ঘরে তুলবে আর্জেন্টিনাই।

তিনি বলেন, এই দলের খেলা আমার খুব ভালো লাগে। বিশেষ করে বর্তমানে মেসির খেলা। এর আগে ২০১০ সালে আমি আমার একটি বাইসাইকেল আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে সাজিয়েছিলাম। এবার আমার জীবিকার বাহন এই অটোরিকশাটিও আমার পছন্দের দলের পতাকার রঙে সাজিয়েছি।

আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে নিজের অটোরিকশা সাজালেও নিজ দেশের পতাকার কথা ভোলেননি এই অটোরিকশাচালক। অটোরিকশায় বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার প্রতীকও রেখেছেন তিনি।

রঙিন অটোরিসকার যাত্রীদের অনুভুতির কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি শুক্রবার (১১ নভেম্বর) অটোরিকশা রঙ করেছি। বেশির ভাগ যাত্রীরাই ভালো বলেছেন। তবে বিপক্ষ দলের সমর্থকদের কাছে হয়তো এটা ভালো নাও হতে পারে।

বিশ্বকাপের আগেই আর্জেন্টিনা দলের জার্সি কিনে গায়ে জড়িয়ে অটোরিকশায় যাত্রী পরিবহন করবেন বলে জানান আশরাফুল। তিনি বলেন, অটোরিকশা রঙ করতে প্রায় পাঁচ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। দুই এক দিনের মধ্যে টাকা জোগাড় করে জার্সিও কিনবেন।

কুড়িগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার ভারপ্রাপ্ত সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইউনুছ আলী জানান, ফুটবলকে কেন্দ্র করে ভালো দলগুলোর প্রতি বরাবরই দর্শকদের আগ্রহ থাকে। এই সমর্থনের কারণে অটোচালক তার নিজের রিকশা পতাকার রঙে রাঙিয়েছেন। অনেকে ইতিমধ্যেই নিজেদের পছন্দের দলের পতাকাও টাঙিয়েছেন। তবে সমর্থকদের এই উন্মাদনা যেন ঝগড়ায় না গড়ায় সে আহবান জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ