• বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

অসম্ভবকে সম্ভব করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিবেদকের নাম / ৩৩ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২১

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি:
অন্ধকার থেকে আলোকিত বাংলাদেশের ঘোষণা কেবল বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাই দিতে পারেন বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেছেন, শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ আজ অপার সম্ভাবনাময়। দক্ষতা, দেশপ্রেম ও নেতৃত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী অসম্ভবকে সম্ভব করে যাচ্ছেন।

ঢাকার ধামরাইয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে ইফাদ ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পার্ক পরিদর্শন শেষে রবিবার বিকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘বটমলেস বাস্কেট বলে যারা বিদ্রুপ করতো তারাই আজকে বাংলাদেশকে বলছে সম্ভাবনাময়। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আজকে আমরা সেই জায়গায় গিয়েছি।’

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার এক বক্তব্য উদ্ধৃত করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি বলেছিলেন যদি এবার আমরা নির্বাচিত হই তাহলে বাংলাদেশকে পাল্টে দেবো। তিনি যথার্থ ভাবেই সারা বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে তৈরি করেছেন।

‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা স্বরূপ আজকের এই কারখানার অগ্রগতি। প্রধানমন্ত্রী জনগণকে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি যা বলেন তাই করেন৷ তিনি থাকলেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। তিনি অন্ধকার থেকে আলোকিত বাংলাদেশের ঘোষণা দিয়েছেন আর সেটা তিনিই করতে পারবেন।’

ইফাদ অটোস লিমিটেডের গাড়ি সংযোজন এবং এসি, নন-এসি বাসের বডি ও ট্রাকের কেবিন প্রস্তুত কারখানা পরিদর্শন করে আধুনিক প্রযুক্তি সুবিধা সম্বলিত ইফাদ অটোস লিমিটেড কারখানার কাজ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘ইফাদ গ্রুপ বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। বিভিন্ন মডেলের বাস-ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান বাজারজাত করার মাধ্যমে তারা পরিবহন খাতে বিশেষ অবদান রাখছে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ গাড়ি সংযোজনকারী দেশের গণ্ডি পেরিয়ে গাড়ি উৎপাদনকারী দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে বলে আমার প্রত্যাশা।’

এসময় ইফাদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ টিপু জানান, বেসরকারি উদ্যোগে বাংলাদেশে নব দিগন্তের সূচনা করেছে ইফাদ অটোস লিমিটেড। বেশ কয়েক বছর যাবত এই কারখানায় বিভিন্ন ধরনের গাড়ি সংযোজন করা হচ্ছে। চলতি বছরের শুরুর দিক থেকে বিলাসবহুল এসি, নন-এসি বাসের বডি তৈরি করা হচ্ছে।

ইফতেখার আহমেদ টিপু বলেন, ‘বাংলাদেশে বিগত কয়েক বছরে ভারী যানবাহনের ক্ষেত্রে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে আমদানিকৃত গাড়িতে আমদানি বাবদ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ইফাদ অটোস লিমিটেড বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় ও দেশে শিল্প বান্ধব অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে এই কারখানা স্থাপন করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘গাড়ি সংযোজন এবং বডি তৈরির ফলে একদিকে যেমন বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে। অন্যদিকে দেশের অনেক ছোট ছোট বিশেষায়িত কারখানায় তাদের উৎপাদিত মানসম্পন্ন বিভিন্ন পণ্য এই সংযোজন কারখানায় সরবরাহের দ্বার উন্মোচন হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ঢাকার ধামরাইয়ে ঢাকা-আরিচা পাশে ইফাদ অটোস স্থাপন করেছে বেসরকারি উদ্যোগে দেশের সর্ববৃহৎ গাড়ি সংযোজন ও এসি, নন-এসি বাস-ট্রাকের কেবিন প্রস্তুত কারখানা।

ভারতের অশোক লেল্যান্ডের কারিগরি সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত এই কারখানায় প্রতিবছর ১০ হাজারেরও বেশি গাড়ি সংযোজন করা হয়। একইসাথে কারখানাটিতে আধুনিক ও বিশ্বমানের এসি, নন-এসি লাক্সারি বাস ও ট্রাকের কেবিন তৈরি হচ্ছে।

এসময় অন্যদের মধ্যে ঢাকা-২০ আসনের সাংসদ বেনজির আহমেদ এবং ইফাদ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ