• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন

অপু-বুবলীর দ্বন্দ্ব, শাকিবের মুখ বন্ধ

বিনোদন ডেস্ক: / ৬ শেয়ার
প্রকাশিত : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২

অপু বিশ্বাস ও বুবলীর দ্বন্দ্বের সূত্রপাত শাকিব খানকে ঘিরে। অপুকেই প্রথম বিয়ে করেছিলেন শাকিব। এরপর তাকে ডিভোর্স দিয়ে মনের নোঙ্গর ফেলেন বুবলীর তীরে। গোপনে শাকিব-বুবলীর প্রেম, বিয়ে, সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আসে গত সেপ্টেম্বরে। এরপর থেকে দুই নায়িকার দ্বন্দ্ব যেন আরও বাড়তে থাকে। এতদিন তাদের ঝগড়াটা ভেতর ভেতর থাকলেও এবার তা এলো প্রকাশ্যে।

ঘটনার শুরু বুবলীর এবারের জন্মদিনকে ঘিরে। জন্মদিন উপলক্ষে বুবলীকে ডায়মন্ডের নাকফুল উপহার দেন শাকিব। নায়িকা নিজেই তা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। সেই খবরের লিংক নিজের ফেসবুকে শেয়ার করেন অপু। ক্যাপশনে লেখেন- ‘কী যে মজা মজা!’ সঙ্গে জুড়ে দেন তাচ্ছিল্যের হাসি।

অপুর এই পোস্টের জবাব দেন বুবলীও। বুধবার (২২ নভেম্বর) নিজের ফেসবুকে তিনি লেখেন, “একজন হঠাৎ করেই বলে উঠল, ‘আরে ওই বেটি যে আপনাদের ছবিসহ নিউজ তার নিজের ফেসবুক ওয়ালে বাঁধাই করে রাখসে, এটাই তো আপনার মজা। এতেই তো বোঝা যায়, তার শয়নে-স্বপনে শুধুই আপনি। হা হা হা।”

সামাজিক মাধ্যমে দুই নায়িকার এমন লড়াইয়ে সামিল হচ্ছেন নেটিজেনরাও। তারা নিজেদের মতো করে মুখরোচক মন্তব্য করছেন অপু-বুবলীর পোস্টে। তবে এই প্রসঙ্গে এখনো নিশ্চুপ শাকিব খান। জয়-বীরের বাবা এ নিয়ে কোনো পতিক্রিয়াই দেখাচ্ছেন না।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২০ জুলাই ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবন্ধ হন বলে জানান বুবলী। ২০২০ সালের ২১ মার্চ সন্তানের বাবা-মা হন তারা। তাদের সন্তানের নাম শেহজাদ খান বীর। এরপর বিভিন্নভাবে শাকিব ইঙ্গিত করেছেন বুবলীর কাছ থেকে তিনি আলাদা আছেন। যদিও এ বিষয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি বুবলী। বরং তার সাম্প্রতিক বিভিন্ন পোস্ট দিচ্ছে দুজনের সুখে থাকার বার্তা।

এর আগে ২০০৮ সালে ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন ঢাকাই সিনেমার দুই শীর্ষ তারকা শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। তবে বিয়ের খবর টের পায়নি কেউ। ২০১৭ সালে একটি টিভি চ্যানেলের লাইভে সন্তান আব্রাহাম খান জয়সহ হাজির হন অপু। এরপর জানান, তিনি ও শাকিব বিবাহিত এবং এই সন্তান তাদেরই। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি বিচ্ছেদ হয় তাদের। শাকিব-অপুর সংসারে রয়েছে ৬ বছরের পুত্রসন্তান আব্রাম খান জয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ